Categories
Uncategorized

বিশ্বকে মানুষের কল্যাণের উপযোগী গড়ে তোলার নৈতিক দায়িত্ব আমাদের -এমপি শাওন

আমরা সবাই মানুষ। আমার-আপনার পাশে রাস্তায় ঘুমানো ব্যক্তিটিও মানুষ। সমাজে আমাদের পরিচয় থাকলেও তাদের কিন্তু সেটা নেই। আমাদের সমাজের আধুনিক মানুষগুলো রাস্তায় পরে থাকা ভিক্ষুককে ডিঙ্গিয়ে কোটি কোটি টাকা খরচ করে অন্য গ্রহে জীবের সন্ধান করাটাকেই বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ মনে করে! এসব কতটা অমানবিক তাহা ভেবে দেখার কোন সুযোগ নেই! আমার মতে, মানুষ যদি হয়ে থাকে সৃষ্টির সেরা জীব তাহলে কেনো মানুষের প্রতি মানুষের অবহেলা!
সময় এসেছে অধিকার বঞ্চিত-অবহেলিত মানুষের জন্য আমাদের কাজ করার। মানুষ ও মনুষ্যত্বের মুক্তি ও তার মানবীয় মর্যাদা প্রতিষ্ঠা করার। মানবিকবোধ সম্পন্ন প্রজন্ম গড়ে তোলার জন্য আমাদের প্রত্যেককেই কাজ করতে হবে। আমার একার পক্ষে পরিবর্তন সম্ভব নয়। মানবতার কল্যাণে সমাজের প্রতিটি মানুষের মানবিক মর্যাদা প্রতিষ্ঠার শপথ নিতে হবে। আমরা যে ধর্ম-বর্ণের লোক হই না কেন মানুষ হিসেবে প্রত্যেক মানুষরের কল্যাণে কাজ করাই হোক আমাদের অঙ্গিকার।
মানুষ সমাজে তার মৌলিক অধিকার নিয়ে বেঁচে থাকুক। তথ্য-প্রযুক্তির এ যুগে আমাদের নৈতিক দায়িত্ব হচ্ছে বিশ্বকে মানুষের কল্যাণে উপযোগি হিসেবে গড়ে তোলা। লেখাটি মাননীয় এমপি আলহাজ্ব নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন মহোদয়ের ফেসবুক আইডিতে ১৪ জুন ২০১৯ সালের পোস্ট থেকে নেওয়া।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *